নিজস্ব প্রতিবেদক, 21 February-2017, 12:10:17am

হাসপাতাল বা ক্লিনিকে রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ভাংচুর-হট্টগোল না করে বাংলাদেশ মেডিকেল অ‌্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলে (বিএমডিসি) নালিশ করতে ভুক্তভোগীদের অনুরোধ জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ঘটনায় রোগীর স্বজনদের হাসপাতাল কিংবা ক্লিনিক ভাংচুরের প্রেক্ষাপটে বুধবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে চিকিৎসকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় বক্তব‌্যে এই অনুরোধ রাখেন তিনি।

বিধিবদ্ধ সংস্থা বিএমডিসি বাংলাদেশে চিকিৎসকদের সনদ দিয়ে থাকে। চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে পেশাগত দায়িত্বহীনতার অভিযোগ পেলে সংস্থাটি ব‌্যবস্থা নিয়ে থাকে। স্বাস্থ‌্যমন্ত্রী বলেন, “কোনো হাসপাতাল বা ক্লিনিকে কোনো রোগী মারা গেলে রোগীর স্বজন বা আপনজনরা ভুল চিকিৎসায় রোগী মারা গেছে অভিযোগ এনে চিকিৎসকের ওপর হাত উঠান বা প্রতিষ্ঠানের আসবাবপত্র বা অন্য জিনিসপত্র ভাংচুর করে থাকেন। “আইন নিজের হাতে তুলবেন না। সাংবাদিকদের কোনো ভুল নিউজের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে প্রেস কাউন্সিল আছে, আইনজীবীদেরও আছে। ঠিক তেমনি চিকিৎসকদেরও বিএমডিসি রয়েছে।”

এ সময় একজন চিকিৎসক বলেন, “আপনারা (সাংবাদিক) বিশেষজ্ঞ নন। আমি বিশেষজ্ঞ। কিন্তু আপনারা কীভাবে পত্রিকায় লেখেন যে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু হয়েছে।” এ সময় সভাকক্ষে কিছুটা হট্টগোলের সৃষ্টি হয়। উপস্থিত সাংবাদিকরা মন্ত্রীকে বলেন যে তারা রোগীর স্বজনদের অভিযোগ তুলে ধরেন মাত্র।

এসময় একজন সাংবাদিক বলেন, “বিএমডিসি তো অচল। সেখানে অভিযোগ করে স্বাধীনতার পর একজন চিকিৎসক ছাড়া আর কারও বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।” তখন নাসিম বলেন, “২০১০ সালের আগে বিএমডিসি অচল ছিল। এখন তা সচল।” এই পর্যন্ত ১৫ জন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। তবে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সে সম্পর্কে কিছু বলেননি তিনি।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ‌্যাসোসিয়েশন ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) প্রতিনিধিদের সঙ্গে এই মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী জানান, রোগী ও চিকিৎসকের কথা মাথায় রেখে ‘স্বাস্থ্য সেবা আইন’র খসড়া তৈরি করা হয়েছে। আরেকটু দেখে তা সংসদে তোলা হবে।  আইনে কী রয়েছে- জানতে চাইলে তিনি বলেন, “রোগী ও চিকিৎসক দুজনেরই স্বার্থ দেখা হয়েছে।”




এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

স্তন ক্যান্সার থেকে মুক্তি মিলবে ‘নারী-পুরুষের সচেতনতায়’

স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি মোকাবেলায় নারী-পুরুষ সবাইকে সচেতন করার পরামর্শ এসেছে একটি কর্মশালা থেকে।

স্মৃতিশক্তি কমার কারণ : স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি প্রতিবেদনে

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে জানানো হয়, শরীরের পাশাপাশি মস্তিষ্কের পুষ্টির জন্য

প্রসূতি-নবজাতকের সুরক্ষায় ৯ দেশের হেলথ নেটওয়ার্কে বাংলাদেশ


প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যুর হার ২০২২ সালের মধ্যে বর্তমানের অর্ধেকে নামিয়ে আনতে এক ছাতার নিচে

স্বাস্থ্য খাতের শৃঙ্খলা ফেরাতে আসছে নতুন আইন -স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চিকিৎসক ও রোগীর স্বার্থ নিশ্চিত করতে এবং স্বাস্থ্য খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে একটি নতুন আইন হচ্ছে বলে

কোটি টাকার কৃত্রিম হাত রাজ্যে মিলবে নিখরচায় : সৌজন্যে মমতা

কৃত্রিম রোবোটিক হাত বিদেশ থেকে এনে দেহে লাগাতে খরচ হয় প্রায় ৪-৫ কোটি টাকা। তেমনই হাত কলকাতায় বসে